রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১২:৩০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ‘৩৩৩’ এ ফোন পেয়ে খাবার নিয়ে গেল ইউএনও রাজীবুল ইসলাম খান করোনার কারনে পালিত হচ্ছেনা বিশ্বকবি রবি ঠাকুরের ২৫ শে বৈশাখে ১৬০ তম জন্মজয়ন্তী কুষ্টিয়ার কুমারখালী হতদরিদ্রের জন্য বিনামূল্যে মিলছে ঈদ বস্ত্র গেমেস’র নেশায় আসক্ত হয়ে ধ্বংস হচ্ছে হাজারো যুবক বকচরায় মৎস্য ঘের থেকে যুবকের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার টাঙ্গাইলে র‍্যাবের অভিযানে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার কেমন আছেন সাতক্ষীরার ইত্যাদি খ্যাত চুল দিয়ে গাড়ি টানা যুবক আব্দুস সবুর কুমারখালীর শ্রমিকরা পেল প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ নাগরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত কুমিল্লা মুরাদনগরে উপজেলায় পথচারীদের মাঝে যুবলীগের ইফতার বিতরণ

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে এটিএন বাংলার ক্যামেরা পার্সনের উপর পুলিশি নির্যাতন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি। / ১৬৭ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১, ৪:১৩ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে এটিএন বাংলার ক্যামেরা পার্সনের উপর পুলিশি নির্যাতন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ঃ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে আওয়ামীলীগের দু-গ্রুপের সংঘর্ষের সময় দায়িত্ব পালনকালে এটিএন বাংলার ক্যামেরা পার্সনকে আটক করে থানায় নিয়ে এসে চোখ বেঁধে নির্যাতন করেছে বলে জানা গেছে। বুধবার ভোরে বাগুলাট ইউনিয়নের শালঘর মধুয়া সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে তাকে আটক করা হয়।

নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এটিএন বাংলার ক্যামেরা পার্সন নাজমুস হাসিব।

নাজমুস হাসিব জানান, দায়িত্ব পালনকালে তাকে শালঘর মধুয়া থেকে ডিবিপুলিশ আটক করে কুমারখালী থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে। কুমারখালী থানা পুলিশ তাকে গাড়িতে উঠিয়েই নির্যাতন শুরু করে। পরবর্তীতে থানায় নিয়ে আসার পর একটি রুমে দরজা আটকিয়ে চোখ বেঁধে তাকে হকিস্টিক ও হাতুরী দিয়ে নির্যাতন করে। বর্তমানে তিনি কুমারখালী থানার হাজতে অসুস্থ অবস্থায় রয়েছেন।

পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা অস্বীকার করে বলেন এ জাতিয় কোন ঘটনা ঘটেনি।

বর্তমানে কুমারখালী থানায় সর্বস্তরের সাংবাদিক অবস্থান করছেন। এর সঠিক ব্যবস্থা নেয়া না পর্যন্ত সাংবাদিকরা থানা চত্বরে অবস্থান করবেন বলে জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর