শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০২:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
আশেপাশের ওয়ার্ড গুলোতে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা থাকলেও পৌর ১৪ নং ওয়ার্ডে এই দুর্ভোগ চরমে ফেইসবুকে পোস্ট দেখে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন ভোলা ২ আসনের সংসদ আলী আজম মকুল কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সালাউদ্দিন খান তারেকের নিজ অর্থায়নে ১ টি কন্সেনট্রেটর উপহার দিলেন খোকসায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসাহক আলী’র ভুমিকা প্রশংসনীয় খোকসায় প্রধান মন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন এমপি ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ সাম্প্রদায়িক শক্তি, ঘুষ, দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাড়াও-এ্যাড. জয়দেব কুমারখালীতে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খোকসায় তাসফিয়া নামের এক শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যূ কুষ্টিয়ায় নকল কসমেটিকস কারখানায় অভিযানঃজরিমানা আদায় ০২ লাখ টাকা কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামীলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ

জোরগাছা ইউপি চেয়ারম্যান ক্যান্ডিডেট ইয়াবা সেবনের ভাইরাল ছবি

বিপ্লব হোসেন, বিশেষ প্রতিবেদক। / ৩২ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১, ৭:০৭ অপরাহ্ন

জোরগাছা ইউপি চেয়ারম্যান ক্যান্ডিডেট ইয়াবা সেবনের ভাইরাল ছবি।

বগুড়া সোনাতলা থানাধীন জোরগাছা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থী আওয়ামী লীগের নেতা রফিকুল ইসলাম মতিনের ইয়াবা সেবনের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নিয়মিত জুয়া খেলা ও ইয়াবা সেবনের অভিযোগ রয়েছে। প্রশাসন বলছে, অভিযোগের সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
শুধু তাই নয় এই রফিকুল ইসলাম মতিনের একটা গ্রুপ রয়েছে, সরকারের পক্ষ থেকে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করে প্রশাসন জনপ্রতিনিধিসহ দায়িত্বশীলের ভূমিকা পালন করার কথা বলছেন। কিন্তু এই ইয়াবা সেবন কারি চেয়ারম্যান ক্যান্ডিডেট হওয়ার সুজোগ পায় কি করে। এছারা তার বিরুদ্ধে সহযোগীদের নিয়ে নিয়মিত জুয়া খেলা ও ইয়াবা সেবনের অভিযোগ তো আছেই।

তার এমন অপকর্মের ছবি এখন জেলার অধিকাংশ মানুষের মোবাইলে ভেসে বেড়াচ্ছে। ছবিতে দেখা যায়, চেয়ারম্যান ক্যান্ডিডেট রফিকুল ইসলাম মতিন নিজেই আসর বসিয়ে সহযোগীর সহায়তায় মাদকদ্রব্য সেবন করছেন। তার এই অপকর্মের ছবি দেখে সমালোচনার ঝড় বইছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যার পর থেকে ভোর পর্যন্ত এলাকার বিভিন্ন স্থানে থাকেন এই আড্ডা বাজিতে। তবে বেশিরভাগ সময় দিনে দেখা মেলে না তার। এলাকাবাসীর সঙ্গে খারাপ আচরণেরও অভিযোগ রয়েছে তার। এতেই প্রমাণিত হয় যে এই রকম মানুষের দ্বারা যুবসমাজ দিন দিন ধংস হয়ে যাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে প্রশাসনের আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করা হোক।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর